তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট বিজেপি-কে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে পারবে না বলে মনে করেন ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর

বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট লোকসভা ভোটে বিজেপি-কে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে পারবে না বলে মনে করেন ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর। সোমবার সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলির কাছে এই দাবি করেছেন তিনি। তবে এই ধরনের কোনও ফ্রন্ট গড়ার উদ্যোগও যে তিনি নিচ্ছেন না সে কথাও স্পষ্ট করেছেন পিকে।

প্রশান্ত বলেন, ‘‘আমি বিশ্বাস করি না, বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে বিজেপি-কে সফল চ্যালেঞ্জ ছুড়তে পারবে কোনও তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট। আমিও এ রকম কোনও কিছুর সঙ্গে যুক্ত নই।’’ তৃতীয় ফ্রন্টের ধারণাকে ‘সেকেলে’ বলেও মনে করেন তিনি।

আরও পড়ুন-১০ দিনের মাথায় ফের সাক্ষাৎ প্রশান্ত এবং শরদের,বিজেপি- কংগ্রেসকে বাদ দিয়ে তৃতীয় জোট গঠনের জল্পনা

এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ারের সঙ্গে গত দু’সপ্তাহে প্রশান্তের দু’টি বৈঠক ঘিরেই তৃতীয় ফ্রন্টের সম্ভাবনা জোরদার হয়েছিল। সোমবারও পওয়ারের বাড়িতে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক হয়েছে দু’জনের মধ্যে। এর পরই বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগ দেওয়া যশবন্ত সিন্‌হা বিরোধী দলগুলিকে নিয়ে একটি বৈঠকের ডাক দিয়েছেন। পওয়ারের বাড়িতেই মঙ্গলবার সেই বৈঠক হওয়ার কথা। এই বৈঠক ঘিরেই আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি-র বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তৃতীয় ফ্রন্ট গড়ার সম্ভাবনা জোরদার হয়েছিল। সেই ফ্রন্ট গড়ার ক্ষেত্রে প্রশান্তের ভূমিকা নিয়েও আলোচনা শুরু হয়েছিল রাজনৈতিক মহলে। এ রকম সময়েই তৃতীয় ফ্রন্টের ব্যাপারে নিজের অবস্থান জানালেন প্রশান্ত।

আরও পড়ুন-অযোধ্যার জমি বিতর্ক নিয়ে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের কোপে পড়তে হল এক সাংবাদিককে

তাহলে পওয়ার সঙ্গে কী নিয়ে বৈঠক করছেন তিনি? এ ব্যাপারে প্রশান্তের দাবি, তাঁরা দু’জনেই আগে কখনও এক সঙ্গে কাজ করেননি। তাই একে অপরকে জানার জন্যই এই বৈঠক করেছেন।

আরও পড়ুন-বিজেপিও এ বার নির্বাচনী মামলার কথা ভাবছে,কি পদক্ষেপ নিতে চলেছেন দিলীপ ঘোষ

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের আগে পিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছিলেন আসন জেতার ব্যাপারে বিজেপি দু’অঙ্কে আটকে থাকবে। তাঁর সংস্থার সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেই বিজেপি-কে হারাতে সক্ষম হয়েছে তৃণমূল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বিপুল জয় নিয়ে পিকে বলেছিলেন, ‘‘এই জয় সব বিরোধী দলকে বার্তা দিচ্ছে তারাও বিজেপি-র বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে কঠিন প্রতিযোগিতার মধ্যে ফেলতে পারে কেন্দ্রের শাসক দলকে।’’ এই ঘটনার পরই তৃতীয় ফ্রন্ট গড়ার ক্ষেত্রে প্রশান্তের ‘কারিগর’ হওয়া নিয়ে জল্পনা তৈরি করেছিল। প্রশান্তের এই জবাব সেই জল্পনাতে কিছুটা হলেও জল ঢালল।