রাজীব ব্যানার্জিকে নিয়ে চাঞ্চল্যকর মন্তব্য শুভেন্দু অধিকারীর

দলের বৈঠকে যোগ দেননি। তার ঘণ্টাখানেক পরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajib Banerjee)। সেনিয়ে সরাসরি কোনও প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি শুভেন্দু অধিকারী। (Suvendu Adhikari) তাঁর কথায়, ”অত্যাচারিত বিজেপি কর্মীদের পাশে আগে দাঁড়ানো দরকার। তার পর এসব মন্তব্য করা উচিত।

এ দিন রাজীব (Rajib Banerjee) টুইট করেন,”মানুষের বিপুল জমসমর্থন নিয়ে আসা নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা ও মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে গিয়ে কথায় কথায় দিল্লি, আর ৩৫৬ ধারার জুজু দেখালে বাংলার মানুষ ভালোভাবে নেবে না।” এই প্রসঙ্গে দিল্লিতে শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) বলেন,”ঘরছাড়া কর্মীদের পাশে দাঁড়ানো দরকার এখন। ডোমজুড়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ও নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে যাঁরা ভোট করেছেন, সেই সব বিজেপি কর্মীরা অত্যাচারিত। তাঁদের পাশে দাঁড়িয়ে আগে লড়াই করা উচিত। অত্যাচার বন্ধ হোক। তার পর ব্যক্তিগত মত দেওয়া যেতে পারে।

আরও পড়ুন-মিঠুন চক্রবর্তী মামলা খারিজের দাবিতে আর্জি জানালেন হাইকোর্টে

রাজ্যে ৩৫৬ ধারা জারির চেয়েও খারাপ পরিস্থিতি বলে এ দিন দিল্লিতে দাবি করেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। তাহলে তো নাম না করে বিরোধী দলনেতাকেই বিধেঁছেন রাজীব (Rajib Banerjee)? শুভেন্দুর জবাব,”নাম করে বললে বলব। সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনও মন্তব্যের উত্তর দেব না। বিজেপি কর্মীরা জীবন বাজি রেখে ভোটে খেটেছেন। বিজেপি করার অপরাধে তাঁরা অত্যাচারিত হচ্ছেন। সেই সমস্ত কর্মীদের পাশে দাঁড়ানোই এখন অগ্রাধিকার। তার পর এসব মন্তব্য করা উচিত।

আরও পড়ুন-তৃণমূলে ফিরছেন রাজিব একপ্রকার নিশ্চিত, বিজেপির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ

এ দিন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajib Banerjee) টুইট করেছেন,”সমালোচনা তো অনেক হল… মানুষের বিপুল জমসমর্থন নিয়ে আসা নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা ও মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে গিয়ে কথায় কথায় দিল্লি, আর ৩৫৬ ধারার জুজু দেখালে বাংলার মানুষ ভালোভাবে নেবে না। আমাদের সকলের উচিত রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে, কোভিড ও ইয়াস এই দুই দুর্যোগে বিপর্যস্ত বাংলার মানুষের পাশে থাকা।

আরও পড়ুন-বিজেপি থেকে তৃনমূলে যেতে চলেছে প্রায় অর্ধেক বিধায়ক, দেখুন তালিকায় কারা রয়েছে

রাজীবের আগে দলকে আত্মসমালোচনার পাঠ দিয়েছেন বীজপুরের বিজেপি প্রার্থী শুভ্রাংশু রায়। মুকুল-পুত্র ফেসবুকে লিখেছেন,”জনগণের সমর্থন নিয়ে আসা সরকারের সমালোচনা করার আগে, আত্মসমালোচনা করা বেশি প্রয়োজন।