করোনা ও যশ বিধ্বস্ত মানুষের পাশে বাংলা পক্ষ সংগঠন

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত বাংলা। করোনা আটকাতে লক ডাউন চলছে রাজ্যে। বাংলা পক্ষ ভারতের বাঙালির জাতীয় সংগঠন৷ আমরা বাংলার প্রতিটা জেলায় ছড়িয়ে পড়েছি। এই বিপদের সময় শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি থেকে সুন্দরবন, পূর্ব মেদিনীপুর সর্বত্রই মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে বাংলা পক্ষ।

শিলিগুড়ি বাংলা পক্ষ দুঃস্থ মানুষদের রান্না করা খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে। জলপাইগুড়ি জেলা নানা এলাকায় স্যানিটাইজেশনের কাজ করছে। নানা জেলায় কোভিড যোদ্ধা হিসাবে কাজ করছে বাংলা পক্ষর সহযোদ্ধারা। এই সময় রক্তের ঘাটতি তীব্র। বাংলা পক্ষ ইতিমধ্যে তিন জেলা- হুগলী, আলিপুরদুয়ার ও মালদায় রক্তদান শিবির করেছে।

যশে বিধ্বস্ত দুই চব্বিশ পরগনার সুন্দরবন ও সংলগ্ন অঞ্চল এবং পূর্ব মেদিনীপুরের সমুদ্র উপকূলবর্তী বিস্তৃর্ণ এলাকা। বাংলা পক্ষ যথা সম্ভব মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে সকলের সহযোগিতায়। পূর্ব মেদিনীপুরের তাজপুর সংলগ্ন এলাকা প্রায় যেন ধ্বংসস্তূপ এবং এখনও জলমগ্ন। বাংলা পক্ষ প্রায় ৪০০ পরিবারের হাতে শুকনো খাবার, দুধের প্যাকেট, জলের বোতল, স্যানিটারি ন্যাপকিন, মাস্ক, স্যানিটাইজার তুলে দিল গতকাল (৩০/৫/২০২১). ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ চলছে। দুই চব্বিশ পরগনার সদস্যরা শীঘ্রই সুন্দরবনের উদ্দেশ্যে রওনা দেবে। আমফানের পরবর্তী সময়েও আমরা সুন্দরবনের নানা জায়গায় কাজ করেছিলাম মানুষের পাশে দাঁড়াতে। বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা থেকে ১০০ টি পরিবারকে নগদ ৪০০০ টাকা করে পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল বাংলা পক্ষ। এবারও নানাভাবে সুন্দরবনের দু তিনটে ব্লকের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াবে বাংলা পক্ষ।
জয় বাংলা